BENGALI HIGHER SECONDARY EXAM

শিকার । উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সাজেশান । সকল গুরুত্বপূর্ন বহুবিকল্পীয় প্রশ্নোত্তর

শিকার । উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সাজেশান । সকল গুরুত্বপূর্ন বহুবিকল্পীয় প্রশ্নোত্তর

1.’শিকার’কবিতায় রচয়িতা জীবনানন্দ দাশের প্রথম কাব্যগ্রন্থ
=ঝরাপালক
2.’শিকার’কবিতায় শুরু হয়েছে যে শব্দ দিয়ে
=ভোর
3.’শিকার ‘কবিতায় মোট পঙক্তি সংখ্যা
=৩৬
4.’শিকার ‘কবিতায় ভোরবেলায় আকাশের রং
=ঘাস ফড়িংয়ের দেহের মতো
5.”….ঘাস ফড়িংয়ের দেহের মতো ককোমল নীল”-কিসের
=আকাশ
6.টিয়ার পালকের মতো সবুজ – কিসের রং
=পেয়ার ও নোনা গাছের
7.”এখনো আকাশে রয়েছে”-কটি তারা
=একটি
8.”একটি তারা এখনো আকাশে রয়েছে “….কার মতে?
=গোধূলিমদির মেয়েটার মত
9.”একটি তারা এখনো আকাশে রয়েছে’…কারণ-
=রাতের অন্ধকার তখন কাটেনি
10.শিকার কবিতায় পাড়গা বাসরঘরের মেয়েটিকে কবির মনে হয়েছিল
=গোধূলিমদির
11.’গোধূলীমোদির মেয়েটি হল
=পাড়াগার বাসরঘরে
12.”-মানুষী তার বুকের থেকে যে মুক্তা/আমার নীল মদের গ্লাসে রেখেছিল
=হাজার হাজার বছর এক রাতে
13.”আমার নীল মদের গ্লাসে রেখেছিল”-কে রেখেছিল
=মিশরের মানুষী
14.”আমার নীল মদের গ্লাসে রেখেছিল”-কি
=মুক্তা
15.”তেমনি একটি তারা আকাশে জ্বলছে এখন”-কেমন
=মিশরের মানুষী র বুকে থাকা মুক্তার মত
16.”তেমনি একটা তারা জ্বলছে এখনো”-কখন
=ভোরবেলায়
17.”….সারারাত মাঠে আগুন জেলেছে”….করা
=দেশোলীয়ারা
18.সারারাত মাঠে যে আগুন জ্বলছিল তা হল-
=মোরোগফুলের মত
19.”সারারাত মাঠে আগুন জ্বলছে “-কারণ
=শরীর উষ্ণ রাখার জন্য
20.দেশোলীয়াদের আগুন ভোরবেলাতেও জ্বলছিল-
=শুকনো অশ্বত্থ পাতাই

আর পড়ুনঃ- কে বাঁচায় কে বাঁচে অধ্যায় থেকে সকল গুরুত্বপুর্ণ বহুবিকল্পীয় প্রশ্নউচ্চমাধ্যমিক বাংলা সহায়িকা


21.সূর্যের আলোয় তার রং কিসের মতো নেই-
=রোগা শালিকের হৃদয়ের বিবর্ন ইচ্ছার মতো
22.”সূর্যের আলোয় তার রং কুংকুমের মতো নেই আর”-কিসের রং
=দেশোলিয়াদের জ্বালানো আগুনের মতো
23.হৃদয়ের বিবর্ন ইচ্ছার সঙ্গে যার যোগ
=রোগা শালিকের মত
24.”রোগা শালিকের হৃদয়ের বিবর্ন ইচ্ছার মতো”?
=দেশোয়ালিদের জ্বালানো আগুনের রঙ
25.”রোগা শালিকের হৃদয়ের বিবর্ন ইচ্চার মতো কি হয়েছিল
=আগুন
26.চারিদিকের বন আকাশ কিসের মতো ঝিলিমিলি করেছে?
=ময়ূরের সবুজ নীল ডানার মত
27.শিশিরের চারিদিকে বন আকাশ ময়ূরের সবুজ নীল ডানার মতো
=ঝিলমিল করছে
28.সারারাত হরিণ নিজেকে কিসের হাত থেকে বাঁচায়
=চিতাবাঘিনী
29.সারারাতা হরিণটি ঘুরছিল
=অর্জুন-সুন্দরী বনে
30.’সুন্দরী বন থেকে অর্জুন বনে’-কিসের মতো অন্ধকার ছিল?
=মেহগনি মতো
31.চিতাবাঘিনী র তারা খাওয়া হরিণটি হল
=সুন্দর বাদামি
32.হরিণ টি যার জন্য অপেক্ষা করছিল
=ভোরের জন্য
33.সুন্দর বাদামি হরিণ যার জন্য অপেক্ষা করছিল।”কারন
=চিতাবাঘিনির হাত থেকে রক্ষা পেতে
34.”এসেছে সে ভোরের আলোই নেমে;-কে?
=হরিণ
35.”এসেছে সে ভোরের আলোয় নেমে”-কারণ
=ঘাস খেতে
36.’শিকার ‘কবিতায় কচি বাতাবিলেবুর মতো ছিল-
=সবুজ সুগন্ধি ঘাস
37.সবুজ ঘাসের সাথে কবি যার সাথে তুলনা করেছেন
=কচি বাতাবিলেবু
38.হরিণ কি ছিঁড়ে ছিঁড়ে খাচ্ছে
=সুগন্ধি ঘাস
39.হরিণটি ভোরের আলোর যেখানে নেমেছে
=নদীর জল
40.নদীর তীক্ষ্ণ শীতল জলে সে নামল
=বাদামি হরিণ

আরও পরুনঃ- ভারতবর্ষ । উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সহায়িকা । সকল গুরুত্বপূর্ন MCQ প্রশ্নোত্তর


41.নদীর জলে নাম হরিণের শরীর ছিল
=ঘুমহীন ক্লান্ত কর
42.নদীর ঢেউয়ে নেমেছিল
=স্রোতের মতো অভ্যাস পাওয়া যায়

43. “একটা আবেশ দেয়ার জন্য”- কার তুলনা করেছেন
= স্রোতের
44.”হরিণটি যে উল্লাস খুঁজে নিতে চেয়েছিল ” তা হল
= ভোরের রৌদ্রের মত
45.”এই নীল আকাশের নিচে সূর্যের-কর্ণার মত জেগে উঠে-
=সোনার
46.হরিণটি জেগে উঠতে চেয়েছিল
=সূর্যের সোনার বর্শা র মত
47.’হরিণীর পর হরিনিকে হরিণটি চমকে দিতে চেয়েছিল
=সাহসে সাধে সৌন্দর্য্য
48.”একটা অদ্ভুত শব্দ”-কিসের
=বন্দুকের
49.”নদির জল মোচক ফুলের পাপড়ি র মতো লাল।”-কারণ
=হরিণের রক্ত জলে ফেলেছে
50.”আগুন জ্বলে উঠলো আবার” কখন আবার আগুন জ্বলে উঠলো
=হরিন শিকারের পর
51.’শিকার’কবিতায় দ্বিতীয় বার আগুন জেলেছিল কারণ
=হরিণের মাংস তৈরি করার জন্য
52.ঘাসের বিছানা ছিল
=নক্ষত্রের নিচে
53.নক্ষত্রের নীচে ঘাসের বিছানায়-কি গল্প হত
=পুরোনো শিশির ভেজা গল্প
54.টেরিকাটা মানুষরা খাই
=সিকারেট
55.যে মানুষ গুলোকে ঘাসের বিছানায় দেখা গিয়েছিল তারা ছিল
=তরিকাটা

আরও পড়ুনঃ- রূপনারায়নের কূলে । উচ্চমাধ্যমিক বাংলা সহায়িকা । সকল গুরুত্বপূর্ন বহুবিকল্পীয় প্রশ্নোত্তর


56.”টেরিকাটা কয়েকটি মাথা;।-কোথায় অবস্থান করছে
=ঘাসের বিছানায়
57.শিকার কবিতায় কোন ঋতু কথা বলা হয়েছে
=হেমন্ত
58.শিকার কবিটি শিকারটি সংঘটিত হয়েছিল
=ভরলাবাই
59.ভোরবেলা হরিণটি কি খাচ্ছিল?
=কোচি ঘাস
60.”ঘামহীন ক্লান্ত বিহবন শরীরটাকে স্রোতের মতো /একটা আবেশ দেয়ার জন্য”-হরিণটি কি লোরলো
=নদীর তীক্ষ জলের জল নামল